বিজ্ঞপ্তি:
"কুমিল্লা টাইমস টিভিতে" আপনার প্রতিষ্ঠান অথবা নির্বাচনী প্রচারনার জন্য এখনি যোগাযোগ করুন : ০১৬২২৩৮৮৫৪০ এই নম্বরে
শিরোনাম:
মুরাদনগরে ভূমি সেবা সপ্তাহের সমাপনী; শ্রেষ্ঠ কর্মকর্তাদের সম্মাননা প্রদান ঢাকাস্থ মুরাদনগর ছাত্রকল্যাণ পরিষদের সভাপতি আমিন ও সাধারণ সম্পাদক হাবিব শ্রদ্ধা ও ভালোবাসায় নার্গিস আফজালকে চিরো বিদায় ধর্ষণ মামলায় কুমিল্লা থেকে প্রিন্স মামুন গ্রেফতার ব্যবসায়ীকে তিন দিনের মধ্যে মেরে ফেলার হুমকি, নিরাপত্তা চেয়ে থানায় অভিযোগ অনিয়মের সংবাদ প্রকাশে সুফল পাচ্ছে এলাকাবাস কুমিল্লায় বিএনপির দুই গ্রুপে সংঘর্ষ, গুলি-ককটেল বিস্ফোরণ বিশ্ব মুক্ত গণমাধ্যম দিবসে কুমিল্লায় সম্মাননা পেলেন ৭ সংবাদকর্মী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ১৭জন প্রার্থীর মনোনয়ন পত্র দাখিল কুমিল্লায় তীব্র গরমে একই বিদ্যালয়ের ৭ শিক্ষার্থী অসুস্থ মুরাদনগরে নাগরিক ঐক্য পরিষদের প্রার্থী ঘোষনা মধ্যরাতে অগ্নিকান্ডে ভস্মীভূত ১৫ব্যবসা প্রতিষ্ঠান মুরাদনগরে বিএনপির ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত মুরাদনগরে সড়কের সংস্কার কাজে অনিয়ম বিলুপ্তির পথে কুমিল্লার তাঁতে তৈরি আসল খাদি

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় পুলিশ হত্যার প্রধান আসামি বন্দুক যুদ্ধে নিহত

  • আপডেটের সময় : সোমবার, ২০ জুলাই, ২০২০
  • ৬৫০ বার পড়া হয়েছে
ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় পুলিশ হত্যার প্রধান আসামি বন্দুক যুদ্ধে নিহত
ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় পুলিশ হত্যার প্রধান আসামি বন্দুক যুদ্ধে নিহত

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধিঃ

সোমবার (২০ জুলাই) ভোররাতে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলার মাছিহাতা ইউনিয়নের চাঁনপুরবাজার এলাকায় পুলিশ হত্যার প্রধান আসামির সাথে বন্দুক যুদ্ধের ঘটনা ঘটে বলে জানায় র‍্যাব-১৪, ভৈরব ক্যাম্পের সদস্যরা।

র‍্যাব-১৪ ভৈরব ক্যাম্পের সহকারি পরিচালক চন্দন দেবনাথ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানায় কর্মরত এএসআই আমির হোসেনকে ছুরিকাঘাতে  হত্যা মামলার প্রধান আসামি চাঁনপুর গ্রামের মুছা মিয়ার ছেলে মামুনকে ধরতে র‍্যাবের একটি দল চাঁনপুর বাজারে যায়। এ সময় র‍্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে মামুন ও তাঁর সহযোগিরা গুলি চালায়। এসময় আত্মরক্ষার্থে র‍্যাবের সদস্যরা পাল্টা গুলি চালালে আসামি মামুন গুলিবিদ্ধ হয়। পরে তাঁকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

তিনি আরো জানান, ঘটনাস্থল থেকে একটি বিদেশি পিস্তল, চার রাউন্ড গুলি ও একটি ছুরি উদ্ধার করা হয়েছে। নিহতের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত শুক্রবার (১৭ জুলাই) বিকেল সোয়া পাঁচটার সময় পাঘাচং বাজারে ডাকাতির প্রস্তুতি মামলার গ্রেপ্তারি পরোয়ানাভুক্ত আসামি মামুন কে গ্রেপ্তারের করার সময় ধস্তাধস্তির একপর্যায়ে আসামি মামুন ছুরি দিয়ে পুলিশের এএসআই আমির হোসেনের বুকের বামপাশে ও মাঝখানে আঘাত করে। এতে এএসআই আমির হোসেন মাটিয়ে লুটিয়ে পরলে তাঁর সহকর্মী মণি শঙ্করসহ স্থানীয়রা তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।

এ ঘটনায় পুলিশ বাদি হয়ে সদর থানায় পাঁচজন কে আসামী করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করে। এ ঘটনায় মামুনের ছোট ভাই ইসমাইল মিয়াসহ দুইজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।


কুমিল্লা টাইমস’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন

বিজ্ঞাপন

সকল স্বত্বঃ কুমিল্লা টাইমস কতৃক সংরক্ষিত

Site Customized By NewsTech.Com