বিজ্ঞপ্তি:
"কুমিল্লা টাইমস টিভিতে" আপনার প্রতিষ্ঠান অথবা নির্বাচনী প্রচারনার জন্য এখনি যোগাযোগ করুন : ০১৬২২৩৮৮৫৪০ এই নম্বরে
শিরোনাম:
মুরাদনগরে ভাষা শহীদদের স্মরনে প্রভাতফেরি আজ থেকে এক মাস বন্ধ সব কোচিং সেন্টার মুরাদনগরে স্থানীয় সম্পদ আহরণ ও ব্যবস্থাপনা বিষয়ক কোর্সের উদ্বোধন কুমিল্লায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৫ টেলিভিশন জার্নালিস্ট এসোসিয়েশন, কুমিল্লার নতুন কমিটি ঘোষনা মুরাদনগরে অবৈধ সীসা কারখানা সিলগালা, দুই লক্ষ টাকা জরিমানা ডাকাতির টাকা ভাগর দ্বন্দ্বে আ. লীগ নেতা খুন কুমিল্লায় যুবককে হত্যার দায়ে তিনজনের যাবজ্জীবন কুসিকের উপনির্বাচনে মনোনয়নপত্র কিনলেন সাক্কু মুরাদনগরে অনুমোদনহীন হাসপাতাল সিলগালা, লাখ টাকা জরিমানা বাবুটিপাড়া ইউনিয়নে ২০০ টি পরিবারে স্বপ্নচূড়ার কম্বল বিতরণ বাঞ্ছারামপুরে চালক’কে হত্যা করে অটোরিক্সাসা ছিনতাই কুমিল্লা-৩ (মুরাদনগর) আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী জাহাঙ্গীর আলম সরকার নির্বাচিত দেবিদ্বারে কাজী সাফিয়া সুলাইমান এতিমখানার ১০ হাফেজকে পাগড়ী প্রদান মুরাদনগরে নৌকায় ভোট চেয়ে ইউসুফ হারুনের উঠান বৈঠক

১০ কোটি বছর কেটেছে ঘুমে!

  • আপডেটের সময় : বৃহস্পতিবার, ৩০ জুলাই, ২০২০
  • ৫৮৩ বার পড়া হয়েছে
কুমিল্লা টাইমস

অনলাইন ডেস্ক

প্রায় ১০ কোটি বছর ঘুমিয়ে ছিল তারা। প্রশান্ত মহাসাগরের তলদেশে, তিন হাজার ৭০০ থেকে পাঁচ হাজার ৭০০ মিটার গভীরে। প্রাগৈতিহাসিক যুগের এমন অণুজীবের খোঁজ পেয়েছেন জাপানের বিজ্ঞানীরা। ব্যাকটেরিয়া, ভাইরাস, প্রোটোজোয়া, শৈবাল-ছত্রাক, আর্কিয়া— সংখ্যায় এরা লক্ষাধিক।

বিজ্ঞানীরা বলছেন, সাগরের তলদেশে খাবার ও অক্সিজেনের প্রবল অভাব। সেখানে কিভাবে কোটি কোটি বছর বেঁচে ছিল এই অণুজীবগুলো, তা আশ্চর্যের। সুপ্তাবস্থায় ছিল তারা। তুলে আনতেই ঘুম ভেঙেছে তাদের; ফের সজীব হয়ে উঠেছে।

জাপান এজেন্সি ফর মেরিন-আর্থ সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজির সমুদ্রবিজ্ঞানীরা এই আণুবীক্ষণিক জীবদের খোঁজ পেয়েছেন।

‘মাইক্রোবিয়াল লাইফ’ নিয়ে বড় ধরনের গবেষণা চলছে জাপানে। এর অধীনে সাগরের গভীরে আণুবীক্ষণিক জীবের খোঁজ করছেন বিজ্ঞানীরা। এই গবেষণার সঙ্গে রয়েছে আমেরিকার ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব অ্যাডভান্সড ইন্ডাস্ট্রিয়াল সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজি, জাপানের কোচি ইউনিভার্সিটি ও মেরিন ওয়ার্কস।

বিজ্ঞান সাময়িকী নেচার কমিউনিকেশনে এই গবেষণার ফল গত মঙ্গলবার প্রকাশিত হয়েছে। গবেষক ইউকি মোরোনো বলেন, ল্যাবরেটরিতে নিয়ে আসতেই সক্রিয় হয়ে ওঠে ব্যাকটেরিয়া, প্রোটোজোয়া ও আর্কিয়ারা। খাবার দেওয়া হলে তা খেয়ে বিভাজিত হতেও শুরু করে তারা। এদের সক্রিয়তা এতটুকু নষ্ট হয়নি বলে জানান তিনি।

এই আণুবীক্ষণিক জীবদের জিনের গঠন বিন্যাস বের করলে সেই সময়কার পৃথিবীর বায়ুমণ্ডল ও জীববৈচিত্র্যের আরো বিস্তারিত জানা যাবে বলে জানিয়েছেন বিজ্ঞানীরা।

সূত্র : দ্য ওয়াল।


কুমিল্লা টাইমস’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন

বিজ্ঞাপন

সকল স্বত্বঃ কুমিল্লা টাইমস কতৃক সংরক্ষিত

Site Customized By NewsTech.Com