বিজ্ঞপ্তি:
"কুমিল্লা টাইমস টিভিতে" আপনার প্রতিষ্ঠান অথবা নির্বাচনী প্রচারনার জন্য এখনি যোগাযোগ করুন : ০১৬২২৩৮৮৫৪০ এই নম্বরে
শিরোনাম:
মুরাদনগরে গোল্ডেন জিপিএ—৫ প্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের মাঝে ল্যাপটপ বিতরণ রাতের আধারে মাটি কাটায় ইটভাটাকে ২ লাখ টাকা জরিমানা মুরাদনগরে কৃষক হত্যার প্রধান আসামি গ্রেপ্তার কুমিল্লা-সিলেট সড়কে ইটভাটার মাটিতে ঘটছে দুর্ঘটনা ৩ বছরেও চালু হয়নি অর্ধকোটি টাকার বায়োমেট্রিক হাজিরাযন্ত্র শ্রীকাইল সরকারি কলেজে নবীন বরণ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে রামচন্দ্রপুর অধ্যাপক আবদুল মজিদ কলেজে নবীন বরণ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত মুরাদনগরে ভুমি খেকোর হাতে বিনষ্ট প্রায় ৭শ বিঘা ফসলি জমি মুরাদনগরে ২ শিশুকে হত্যা; নারীর মৃত্যুদণ্ড যাবজ্জীবন ১ মুরাদনগরে দিনব্যাপী অভিযানে ৪টি ড্রেজার মেশিন জব্দ মুরাদনগরে বখাটের হাতে জিম্মি প্রবাসী পরিবার মুরাদনগরে স্কুল ছাত্রীকে উত্ত্যক্ত, যুবক গ্রেপ্তার মুরাদনগরে সুপ্রীমকোর্টের নির্দেশ অমান্য করায় স্বরাষ্ট্রসচিবসহ ১৩ জনকে উকিল নোটিশ মুরাদনগরে গ্রামীণ ঐতিহ্যের শীতকালীন পিঠা উৎসব কুমিল্লার বাঙ্গরায় জেলা পরিষদের সুপার মার্কেটের শুভ উদ্বোধন

চান্দিনায় রোগীর মেয়েকে ধর্ষণের চেষ্টা, ওয়ার্ডবয়কে গণধোলাই

  • আপডেটের সময় : বৃহস্পতিবার, ৩ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ২৯২ বার পড়া হয়েছে
চান্দিনায় রোগীর মেয়েকে ধর্ষণের চেষ্টা, ওয়ার্ডবয়কে গণধোলাই
চান্দিনায় রোগীর মেয়েকে ধর্ষণের চেষ্টা, ওয়ার্ডবয়কে গণধোলাই

চান্দিনা প্রতিনিধিঃ

কুমিল্লার চান্দিনা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রোগীর মেয়েকে যৌন নির্যাতন করেছে ওয়ার্ড বয় আবুল বাশার। চান্দিনা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের নারী ওয়ার্ডে ওই ঘটনা ঘটে। এসময় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অন্যান্য রোগী ও তাদের স্বজনরা ওই ওয়ার্ডবয়কে আটক করে গণধোলাই দেয়।

এ ঘটনায় বুধবার তিন সদস্যের একটি তদন্ত টিম গঠন করেছে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স কর্তৃপক্ষ। আবুল বাশার (৩৫) চান্দিনা উপজেলার কালেমসার গ্রামের আব্দুল আজিজের ছেলে।

চিকিৎসাধীন নারী জানান, গত ৩১ আগস্ট তার চিকিৎসার জন্য চান্দিনা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হন। বড় মেয়েও সাথে ছিল। মঙ্গলবার রাত আড়াইটার দিকে ওয়ার্ডবয় আবুল বাশার তার মেয়েকে ধর্ষণের চেষ্টা করে। মেয়ের চিৎকার শুনে রোগীরা জেগে উঠলে ওই ওয়ার্ড বয় পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। এসময় তাকে গণধোলাই দেয়। এই ঘটনার সুষ্ঠু বিচার চাই।

একই কক্ষে থাকা রোগী শাহিনা আক্তার জানান, অন্যান্য দিন রাতে ওয়ার্ডে লাইট জ্বালানো থাকে। মঙ্গলবার রাত ১১টার পর ওই ওয়ার্ডবয় এসে লাইট অফ করে দিয়ে সবাইকে ঘুমাতে বলে চলে যায়। রাত অনুমান আড়াইটার দিকে চিৎকার শুনে ঘুম ভাঙলে দেখি, ওয়ার্ডবয় দৌড়ে চলে যাচ্ছে। মহিলা ওয়ার্ডে পুরুষদের আসাই তো ঠিক না।

ওয়ার্ডবয় আবুল বাশার জানান, রাত ৮টা থেকে আমার ডিউটি ছিল। রাত ১২টার সময় ঘুমিয়ে পড়ি। চিৎকার শুনে বের হলে তারা (রোগী ও তাদের স্বজনরা) আমাকে মারধর করে মাথা ফাটিয়ে দেয়।

উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. আনোয়ার উল্যাহ্ জানান, রোগীর স্বজনের সাথে অনৈতিক কর্মটি অত্যন্ত দুঃখজনক। এ ব্যাপারে আমরা জুনিয়র কনসালট্যান্ট (গাইনি) ডা. হাছিনা আক্তারকে প্রধান করে তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেছি। এছাড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও থানা অফিসার ইনচার্জকে বিষয়টি অবহিত করেছি।

থানার ওসি শামস্উদ্দীন মোহাম্মদ ইলিয়াছ জানান, প্রাথমিক তদন্তে যৌন হয়রানির বিষয়টির সত্যতা পাওয়া গেছে। লিখিত অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিভীষণ কান্তি দাশ জানান, তদন্ত কমিটি গঠন করেছি। তিন দিনের মধ্যে প্রতিবেদন দেওয়ার জন্য উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তাকে নির্দেশ দিয়েছি। দোষী ব্যক্তির বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


কুমিল্লা টাইমস’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন

বিজ্ঞাপন

সকল স্বত্বঃ কুমিল্লা টাইমস কতৃক সংরক্ষিত

Site Customized By NewsTech.Com