বিজ্ঞপ্তি:
"কুমিল্লা টাইমস টিভিতে" আপনার প্রতিষ্ঠান অথবা নির্বাচনী প্রচারনার জন্য এখনি যোগাযোগ করুন : ০১৬২২৩৮৮৫৪০ এই নম্বরে
শিরোনাম:
মুরাদনগরে গোল্ডেন জিপিএ—৫ প্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের মাঝে ল্যাপটপ বিতরণ রাতের আধারে মাটি কাটায় ইটভাটাকে ২ লাখ টাকা জরিমানা মুরাদনগরে কৃষক হত্যার প্রধান আসামি গ্রেপ্তার কুমিল্লা-সিলেট সড়কে ইটভাটার মাটিতে ঘটছে দুর্ঘটনা ৩ বছরেও চালু হয়নি অর্ধকোটি টাকার বায়োমেট্রিক হাজিরাযন্ত্র শ্রীকাইল সরকারি কলেজে নবীন বরণ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে রামচন্দ্রপুর অধ্যাপক আবদুল মজিদ কলেজে নবীন বরণ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত মুরাদনগরে ভুমি খেকোর হাতে বিনষ্ট প্রায় ৭শ বিঘা ফসলি জমি মুরাদনগরে ২ শিশুকে হত্যা; নারীর মৃত্যুদণ্ড যাবজ্জীবন ১ মুরাদনগরে দিনব্যাপী অভিযানে ৪টি ড্রেজার মেশিন জব্দ মুরাদনগরে বখাটের হাতে জিম্মি প্রবাসী পরিবার মুরাদনগরে স্কুল ছাত্রীকে উত্ত্যক্ত, যুবক গ্রেপ্তার মুরাদনগরে সুপ্রীমকোর্টের নির্দেশ অমান্য করায় স্বরাষ্ট্রসচিবসহ ১৩ জনকে উকিল নোটিশ মুরাদনগরে গ্রামীণ ঐতিহ্যের শীতকালীন পিঠা উৎসব কুমিল্লার বাঙ্গরায় জেলা পরিষদের সুপার মার্কেটের শুভ উদ্বোধন

কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশনের প্রকৌশলীর কার্যালয় ভাঙচুর!

  • আপডেটের সময় : শুক্রবার, ১১ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ২৮৯ বার পড়া হয়েছে

ফয়সাল মবিন পলাশ, স্টাফ রিপোর্টারঃ

অনিয়মের অভিযোগে দুই অস্থায়ী (মাস্টার রোল) কর্মচারির বেতন বন্ধ রাখায় কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশনের (কুসিক) তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী শেখ মো. নুরুল্লাহর কার্যালয়ে ভাঙচুর চালানো হয়েছে। খবর পেয়ে পুলিশ ও র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটেলিয়ন (র‌্যাব) ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

বৃহস্পতিবার (১০ সেপ্টেম্বর) দুপুরে ছয়-সাত যুবক ওই প্রকৌশলীর কার্যালয়ে ভাঙচুর চালায়।
প্রকৌশলী নুরুল্লাহর অভিযোগ, সিটি কর্পোরেশনের ট্যাক্স শাখায় মাস্টার রোলে কর্মরত দুই কর্মচারির বিরুদ্ধে সম্প্রতি অনিয়মের অভিযোগ ওঠে। সে কারণে তাদের আগস্ট মাসের বেতন বন্ধ রাখা হয়। বৃহস্পতিবার স্টাফ মিটিংয়ে তিনি তাদের অনিয়মের বিরুদ্ধে বক্তব্য রাখেন। পরে তারা ক্ষিপ্ত হয়ে আরও ছয়-সাতজন যুবককে নিয়ে তার কার্যালয়ের টেবিলের গ্লাস ও চেয়ার ভাঙচুর করে।

তবে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সিটি কর্পোরেশনের দায়িত্বশীল একটি সূত্র জানায়, একটি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের কাজের অনিয়মের কারণে ওই প্রকৌশলী ঠিকাদারের চাহিদামতো বিল পরিশোধে অস্বীকৃতি জানান। তাই ওই ঠিকাদার ও তার লোকজন প্রকৌশলীর ওপর ক্ষিপ্ত ছিলেন। এছাড়াও, বৃহস্পতিবার স্টাফ মিটিংয়ে তিনি সিটি কর্পোরেশনে কোনো দুর্নীতি সহ্য করবেন না বলে ঘোষণা দেন। এসবের জেরেই তার অফিসে ভাঙচুর চালানো হয়।

এ বিষয়ে যোগাযোগ করা হলে কুসিক মেয়র মো. মনিরুল হক সাক্কু মুঠোফোনে জানান, ‘‘আমি ঢাকায় আছি। ডেইলি লেবার এবং স্থায়ী লেবারদের মাঝে কাজকর্ম নিয়ে কথা কাটাকাটি হয়েছে বলে শুনেছি, এর বেশি কিছু আমার জানা নেই। ভাঙচুরের বিষয়টি প্রকৌশলী জানেন।’’

র‌্যাব-১১ এর কুমিল্লা সিপিসি-এর কমান্ডিং অফিসার তালুকদার নাজমুস সাকিব জানান, সিটি কর্পোরেশন থেকে খবর পেয়ে র‌্যাবের একটি টিম ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।
সন্ধ্যায় কোতোয়ালী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ারুল হক বলেন, কর্মচারিদের বেতন নিয়ে গোলমালের খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলীর টেবিলের গ্লাস ভেঙে ফেলার ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় এখনও থানায় কোনো অভিযোগ করা হয়নি।


কুমিল্লা টাইমস’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন

বিজ্ঞাপন

সকল স্বত্বঃ কুমিল্লা টাইমস কতৃক সংরক্ষিত

Site Customized By NewsTech.Com