বিজ্ঞপ্তি:
"কুমিল্লা টাইমস টিভিতে" আপনার প্রতিষ্ঠান অথবা নির্বাচনী প্রচারনার জন্য এখনি যোগাযোগ করুন : ০১৬২২৩৮৮৫৪০ এই নম্বরে
শিরোনাম:
কুমিল্লা বোর্ড সেরা রামচন্দ্রপুর আবদুল মজিদ কলেজ মুরাদনগরে গোল্ডেন জিপিএ—৫ প্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের মাঝে ল্যাপটপ বিতরণ রাতের আধারে মাটি কাটায় ইটভাটাকে ২ লাখ টাকা জরিমানা মুরাদনগরে কৃষক হত্যার প্রধান আসামি গ্রেপ্তার কুমিল্লা-সিলেট সড়কে ইটভাটার মাটিতে ঘটছে দুর্ঘটনা ৩ বছরেও চালু হয়নি অর্ধকোটি টাকার বায়োমেট্রিক হাজিরাযন্ত্র শ্রীকাইল সরকারি কলেজে নবীন বরণ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে রামচন্দ্রপুর অধ্যাপক আবদুল মজিদ কলেজে নবীন বরণ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত মুরাদনগরে ভুমি খেকোর হাতে বিনষ্ট প্রায় ৭শ বিঘা ফসলি জমি মুরাদনগরে ২ শিশুকে হত্যা; নারীর মৃত্যুদণ্ড যাবজ্জীবন ১ মুরাদনগরে দিনব্যাপী অভিযানে ৪টি ড্রেজার মেশিন জব্দ মুরাদনগরে বখাটের হাতে জিম্মি প্রবাসী পরিবার মুরাদনগরে স্কুল ছাত্রীকে উত্ত্যক্ত, যুবক গ্রেপ্তার মুরাদনগরে সুপ্রীমকোর্টের নির্দেশ অমান্য করায় স্বরাষ্ট্রসচিবসহ ১৩ জনকে উকিল নোটিশ মুরাদনগরে গ্রামীণ ঐতিহ্যের শীতকালীন পিঠা উৎসব

ঈদের দিন রাতের মধ্যেই কোরবানির বর্জ্য অপসারণ করেছে কুসিক

  • আপডেটের সময় : রবিবার, ২ আগস্ট, ২০২০
  • ৩০৩ বার পড়া হয়েছে
ঈদের দিন রাতের মধ্যেই কোরবানির বর্জ্য অপসারণ করেছে কুসিক
ঈদের দিন রাতের মধ্যেই কোরবানির বর্জ্য অপসারণ করেছে কুসিক

কুমিল্লা প্রতিনিধিঃ

ঘোষণা অনুযায়ী নির্ধারিত সময়ে মধ্যেই মহানগরীর কোরবানির সকল বর্জ্য অপসারণ সম্পন্ন করেছে কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশন (কুসিক)।

গত বছরের মতো এবারো ঈদের দিন রাতের মধ্যেই কোরবানির বর্জ্য অপাসারণে রেকর্ড গড়লো কুসিক। কোরবানির বর্জ্য অপসারণ ও পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতার কাজে সহযোগিতা প্রদান করায় মহানগরবাসীকে এবং কাউন্সিলর গণকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন সিটি মেয়র মোঃ মনিরুল হক সাক্কু।

উল্লেখ্য, গত শনিবার দুপুরে নগরীর নগর ভবনে আনুষ্ঠানিকভাবে মোবাইলে অডিও বার্তায় কোরবানির বর্জ্য অপসারণ উদ্বোধন করেন মেয়র মোঃ মনিরুল হক সাক্কু। এ সময় বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কর্মকর্তা আলমগীর হোসেন ও সহকারী প্রকৌশলী খায়রুল বাসার এবং বর্জ্য ব্যবস্থাপনা সুপারভাইজার ইকরাম হোসেন ইকু উপস্থিত ছিলেন।
উদ্বোধনকালে মেয়র বলেছিলেন, ‘ঈদুল আযহায় কোরবানির পশুর রক্ত, মলমুত্র ও সকল বর্জ্য রাত ১২টার মধ্যেই অপসারণ করা হবে।’ এরআগে এ সংক্রান্ত বিভিন্ন সভায় একই ঘোষণা দিয়েছিলেন মেয়র। মেয়রের ঘোষণা অনুযায়ী নির্ধারিত সময়ের মধ্যেই বর্জ্য অপসারণ সম্পন্ন করেছে কুসিক পরিচ্ছন্ন বিভাগ।

বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কর্মকর্তা আলমগীর হোসেন বলেন, মেয়র মহোদয়ের ঘোষণা অনুযায়ী ঈদের দিন রাতের মধ্যেই আমরা কোরবানির সকল বর্জ্য অপসারণ করতে সক্ষম হয়েছি। বর্জ্য অপসারণ করে কোরবানির স্থান পানি দিয়ে ধুঁয়ে পরিস্কার ও পর্যাপ্ত পরিমানে জীবাণুনাশক ছিটানো হয়েছে। প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী ঈদের পরদিনই পরিচ্ছন্ন শহর পেয়েছেন মহানগরবাসী।

পরিচ্ছন্নকর্মীরা সহ সকলে নিরলসভাবে পরিশ্রম করে এই কাজ সম্পন্ন করেছে।
বর্জ্য ব্যবস্থাপনা সুপারভাইজার ইকরাম হোসেন ইকু বলেন, সাধারণত ঈদের দ্বিতীয় ও তৃতীয় দিনও কিছু ব্যক্তি পশু কোরবানি করে থাকেন। সেই কোরবানির বর্জ্যও দ্রুত সময়ের মধ্যেই অপসারণ করা হবে।


কুমিল্লা টাইমস’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন

বিজ্ঞাপন

সকল স্বত্বঃ কুমিল্লা টাইমস কতৃক সংরক্ষিত

Site Customized By NewsTech.Com