বিজ্ঞপ্তি:
"কুমিল্লা টাইমস টিভিতে" আপনার প্রতিষ্ঠান অথবা নির্বাচনী প্রচারনার জন্য এখনি যোগাযোগ করুন : ০১৬২২৩৮৮৫৪০ এই নম্বরে
শিরোনাম:
মুরাদনগরে বসুন্ধরা শুভসংঘের উদ্যোগে সেলাই প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের উদ্বোধন ‘বাবা, আমাদের বাঁচাও বলে চিৎকার করছিল আমার দুই মেয়ে’ বেইলি রোডের অগ্নিকান্ড; খাবার আনতে গিয়ে প্রাণ হারাল মুরাদনগরের পম্পা সারাদেশে সেরা হলো কুমিল্লা জেলা পুলিশ অস্তিত্ব সংকটে তিতাস নদী, রূপ নিয়েছে আবাদি জমিতে কুমিল্লা জেলা পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়ন, কোম্পানিগঞ্জ শাখার কমিটি গঠন বিরল সূর্যগ্রহণ, দিন হবে রাতের মতো অন্ধকার! মুরাদনগরে পরীক্ষায় নকল দিতে গিয়ে ৩জন আটক; ২বছরের সাজা মার্কিন প্রতিনিধি দলের কৃষি কার্যক্রম পরিদর্শন মুরাদনগরে ভাষা শহীদদের স্মরনে প্রভাতফেরি আজ থেকে এক মাস বন্ধ সব কোচিং সেন্টার মুরাদনগরে স্থানীয় সম্পদ আহরণ ও ব্যবস্থাপনা বিষয়ক কোর্সের উদ্বোধন কুমিল্লায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৫ টেলিভিশন জার্নালিস্ট এসোসিয়েশন, কুমিল্লার নতুন কমিটি ঘোষনা মুরাদনগরে অবৈধ সীসা কারখানা সিলগালা, দুই লক্ষ টাকা জরিমানা

মুরাদনগরে বিয়ে পাগলা ছেলের বিরুদ্ধে বৃদ্ধ বাবাকে হাতুরি পিটার অভিযোগ : ফেসবুকে ভিডিও ভাইরাল

  • আপডেটের সময় : বুধবার, ২১ অক্টোবর, ২০২০
  • ৫৮২ বার পড়া হয়েছে

মুরাদনগর প্রতিনিধি :

প্রথম স্ত্রীর অনুমতি ছাড়াই বিভিন্ন কৌশলে এক এক করে বিয়ে করেন ৫টি। এলাকায় ঘুরে ঘুরে বিয়ে করাই যার একমাত্র নেশা। সর্বশেষ স্ত্রীকে বাড়ি নিয়ে আসলে বাধাঁ দেন বৃদ্ধ পিতা। তাই পিতাকে জনসম্মুখেই দিলেন হাতুড়ি পিটা। সেই ভিডিও ইতিমধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়। নিরূপায় হয়ে বখাটে ছেলের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দেন বাবা। অভিযুক্ত বিয়ে পাগলা কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার ধামঘর গ্রামের আকমত আলীর পুত্র সুরুজ মিয়া।

ভূক্তভোগি পিতা আকমত আলী বলেন, আমার ছেলে পরিবারের লোকজন ছাড়াই সুরুজ মিয়া প্রথমে দেবিদ্বার উপজেলার ধলাহাস গ্রামের আলফাজ আলীর মেয়ে মাফিয়া খাতুনকে বিয়ে করেন। তার সাথে ৫ বছর সংসার করে দু’টি সন্তানসহ তাকে তালাক দেয়। পরে সে উপজেলার কাজিয়াতল গ্রামের নুরুল ইসলামের মেয়ে আছমা আক্তারকে বিয়ে করে দুবাই পাড়ি জমান। সেখানে সুরুজ মিয়া দুবাই প্রবাসী যশোরের ফাতেমা আক্তার নামে আরেক মেয়েকে বিয়ে করেন। তখন থেকেই বাড়িতে থাকা আছমা আক্তারের সাথে সুরুজ মিয়ার দ্বন্দ শুরু হয়। পরবর্তীতে হোমনা থানার ওমরাবাদ গ্রামের আমির হোসেনের মেয়ে সাজেদা বেগম নামের এক মেয়েকে বিয়ে করে মাত্র ৩ মাস পরই আবার তালাকও দেন।

সর্বশেষে গত ৪ মাস পূর্বে মুরাদনগর উত্তর পাড়ার জায়েদ আলীর মেয়ে সুবর্ণা বেগমকে বিয়ে করেন সুরুজ মিয়া। তাকে ঘরে তুলতে আমি বাধাঁ দেই। এতে ক্ষীপ্ত হয়ে গত ১৬ অক্টোবর শুক্রবার আমাকে কিলঘুষিসহ হাতুড়ি পিটা দিয়ে রক্তাক্ত জখম করেন সুরুজ মিয়া। অশ্রুস্বজল চোখে আকমত আলী আরো বলেন, সুরুজ মিয়া সর্বশেষ আমার ৭ শতক জমি মদিনা ব্রিকসের মালিক জালাল উদ্দিনের ২ লাখ টাকায় বিক্রি করি। ওই টাকা থেকে ১ লাখ ৩০ হাজার টাকা ও গরু বিক্রির ৫০ হাজার টাকা ধার নেয় সুরুজ মিয়া। আমি ওষুধ খেতে পারি না, তাই তার কাছে পাওনা টাকা চাইলেই আমাকে গালমন্দ করে মারধর করতে আসে। শুধু তাই নয়, তার দ্বিতীয় স্ত্রী আছমা আক্তার আমাকে দেখাশুনা করায় তাকেও বাড়ি থেকে বের করে দেওয়ার বিভিন্ন পাঁয়তারা করছে। জন্মদাতা পিতা হয়ে কতটুকু কষ্টে থানায় গিয়ে অভিযোগ দিয়েছি তা আপনাদেরকে বুঝাতে পারব না। শেষ বয়সে একটু শান্তিতে মরতে চাই।

পিতাকে হাতুড়ি পিটা দেওয়া অভিযুক্ত সুরুজ মিয়ার কাছে এ বিষয়ে জানতে চাইলে, ‘সে বলেন, আমার বাড়ি আমার ঘর, তারা আমার বিষয়ে নাক গলানোর কে?। পিতাকে মারধর করেছেন কেন? এমন প্রশ্নে সে বলে, শালার বেটাকে জানে মাইরা ফেলা উচিত। সে আমার পক্ষে কথা বলে না।’

মুরাদনগর থানার ওসি (তদন্ত) নাহিদ আহমেদ বলেন, অভিযোগ পেয়েছি। বিষয়টি তদন্ত করে ব্যবস্থা নিব।


কুমিল্লা টাইমস’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন

বিজ্ঞাপন

সকল স্বত্বঃ কুমিল্লা টাইমস কতৃক সংরক্ষিত

Site Customized By NewsTech.Com