বিজ্ঞপ্তি:
"কুমিল্লা টাইমস টিভিতে" আপনার প্রতিষ্ঠান অথবা নির্বাচনী প্রচারনার জন্য এখনি যোগাযোগ করুন : ০১৬২২৩৮৮৫৪০ এই নম্বরে
শিরোনাম:
বিশ্ব মুক্ত গণমাধ্যম দিবসে কুমিল্লায় সম্মাননা পেলেন ৭ সংবাদকর্মী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ১৭জন প্রার্থীর মনোনয়ন পত্র দাখিল কুমিল্লায় তীব্র গরমে একই বিদ্যালয়ের ৭ শিক্ষার্থী অসুস্থ মুরাদনগরে নাগরিক ঐক্য পরিষদের প্রার্থী ঘোষনা মধ্যরাতে অগ্নিকান্ডে ভস্মীভূত ১৫ব্যবসা প্রতিষ্ঠান মুরাদনগরে বিএনপির ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত মুরাদনগরে সড়কের সংস্কার কাজে অনিয়ম বিলুপ্তির পথে কুমিল্লার তাঁতে তৈরি আসল খাদি দেবীদ্বার ইফতার দোয়া ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত কুমিল্লায় সিগারেট বাকি না দেওয়ায় দোকানিকে কুপিয়ে হত্যা ইউপি সদস্যের উপর হামলার জের, ব্যবসায়ীর বাড়ীতে ভাংচুর ও লুটপাট মুরাদনগরে বুধবার ও বৃহস্পতিবার বিদ্যুৎ থাকবেনা কনকর্ড অ্যাসোসিয়েশনের নতুন কমিটি সভাপতি রেজাউল, সম্পাদক আলমগীর কুমিল্লায় রাতের আধারে অসহায় ও দুস্থ পরিবারের মাঝে ইফিতার সামগ্রী বিতরন দক্ষিণ মুরাদনগর কল্যাণ সমিতির উদ্যোগে বিনামূল্যে চক্ষু শিবির অনুষ্ঠিত

মুরাদনগরে খাল দখল করে ভবন নির্মাণ

  • আপডেটের সময় : বৃহস্পতিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ৯৯৬ বার পড়া হয়েছে
মুরাদনগরে খাল দখল করে ভবন নির্মাণ

সাজ্জাদ হোসেন শিমুল:

কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার ছালিয়াকান্দি বাজারের পূর্ব পাশে ছালিয়াকান্দি সরকারি খালটি দখল করে রিপন মিয়া নামের এক ব্যক্তি নির্মাণ করেছে এক বিশাল প্রসাদ। অথচ নির্মানের শুরুতেই উপজেলা ভূমি কর্মকর্তার পক্ষ থেকে বাধা দিলেও কোন প্রকার পরিমাপ ছাড়াই গড়ে তুলা হয়েছে ওই প্রসাধ। ফলে স্থানীয়দের আলোচনা—সমালোচনার কেন্দ্র বিন্দু এখন নিরব ভূমিকায় থাকা প্রশাসন।

এ ছাড়াও উপজেলার কোম্পানীগঞ্জ বাজার—সদরের মাষ্টার পাড়া—উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স হয়ে সদরের উত্তর পাড়ার সরকারি খাল দখল করে কাঁচা ও পাকা ভবন নির্মাণ করা হচ্ছে। খাল দখলে অবলম্বন করা হয় বিভিন্ন কৌশল। প্রথমে খালের ওপর ছাপরা ও মাচা করে অস্থায়ী ঘর নির্মাণ এবং পর্যায়ক্রমে খাল ভরাট ও পাকা ভবন নির্মাণ করা হয়।

ছালিয়াকান্দি গ্রামের আব্দুল মালেক বলেন, রিপন এই বিল্ডিং তৈরি করার সময় স্যারেরা আইসা বাধা দিছিলো। পরে হুনি কেমনে কেমনে যানি সামাধান করছে। এখন রিপনের দেহা দেহি অনেকেই এই খালডা দখল করতাছে। তবে এই খালডা আমাদের কৃষি কাজের জন্য বেশ উপকারি। আমরা চাই প্রশাসন যেন তারাতারি খাল উদ্ধার করে আবার আগের মতো করে দেয়।

দখলদার রিপন বলেন, এ জায়গা আমার ব্যক্তি মালিকানার। যদি প্রমান হয় আমি সরকারি খাল দখল করছি তাহলে আমি আমার বিল্ডিং ভেঙ্গে ফেলবো। ছালিয়াকান্দি ইউনিয়ন পরিষদের তহসিলদার জাকির হোসেন বলেন, খাল দখল করে রিপন প্রসাদ নির্মাণ করছে খবর পেয়ে আমি দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে বাধা দিয়ে

আসি। পরে সিদ্ধান্ত হয় আমাদের উপজেলা ভূমি অফিসের সার্ভেয়ার ও রিপনের ব্যক্তিগত একজন সার্ভেয়ার দিয়ে জায়গাটি পরিমাপ করা হবে। কিন্তু অনেকদিন হলেও এই পরিমাপের কাজটি আর করা হয়নি। এখানে আমারও সন্দেহ যদি বাংলাদেশ জরিপের ম্যাপ দিয়ে পরিমাপ করা হয় তাহলে রিপনের দালান সরকারি খালে পরবে। এ বিষয়ে আমি লিখিত ভাবে আমার স্যারদেরকে অবহিত করেছি।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) অভিষেক দাশ বলেন, ভবনটি দেখে আমারো সন্দেহ সঠিক ভাবে পরিমাপ করলে এর বেশ কিছু অংশ খালে নির্মাণ করা হয়েছে। মূলত কিছুদিন আগে আমাদের উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) সাইফুল ইসলাম কমল বদলি হওয়ায় এ বিষয়ে আর কাজ করা সম্ভব হয়নি। এখন নতুন অফিসার
জিনি এসেছেন সে এবিষয়ে কিছুই জানেন না। তবে আমি নিজেই এ বিষয়টি খতিয়ে দেখছি। যদি ওই ভবনটি খালের অংশ দখল করে থাকে। তাহলে অবশ্যই তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


কুমিল্লা টাইমস’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন

বিজ্ঞাপন

সকল স্বত্বঃ কুমিল্লা টাইমস কতৃক সংরক্ষিত

Site Customized By NewsTech.Com