1. admin@comillatimes.com : Comilla Times : Comilla Times
  2. fm.polash@gmail.com : Foyshal Movien Polash : Foyshal Movien Polash
  3. lalashimul@gmail.com : Sazzad Hossain Shimul : Sazzad Hossain Shimul
মুক্তিযোদ্ধা ও সন্তানদের পুলিশি হামলার প্রতিবাদে মুক্তিযোদ্ধা সন্তান সংসদ রাঙ্গামাটি কমান্ড কাউন্সিলের মানববন্ধন | Comilla Times
ব্রেকিং নিউজ
"কুমিল্লা টাইমস টিভিতে" আপনার প্রতিষ্ঠান অথবা নির্বাচনী প্রচারনার জন্য এখনি যোগাযোগ করুন : ০১৬২২৩৮৮৫৪০ এই নম্বরে
শিরোনাম:
বাঙ্গরায় কমিউনিটি পুলিশিং ডে উপলক্ষে র‌্যালী ও আলোচনা সভা ইকবালকে সাথে নিয়ে পূজা মণ্ডপের সেই গদাটি উদ্ধার করেছে পুলিশ! মুরাদনগরে পুলিশের জালে সেচ্ছাসেবকলীগ নেতাসহ দুই পতিতা ভর্তি-ইচ্ছুকদের সহায়তায় তৎপর কুবি আঞ্চলিক সংগঠনগুলো কুবিতে গুচ্ছ পদ্ধতির ‘খ’ ইউনিটের পরীক্ষা শুরু দেবীদ্বারে যুবলীগের আয়োজনে শান্তি-সম্প্রীতি র‌্যালী ও আলোচনা সভায় দু’গ্রুপের সংঘর্ষ; আহত-১০ পূজামণ্ডপের ঘটনায় ৭ দিনের রিমান্ডে ইকবাল নবীনগরে চেয়ারম্যান প্রার্থী’র পক্ষে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সাম্প্রদায়িক সহিংসতার প্রতিবাদে কুবিতে মোমবাতি প্রজ্জ্বলন কুমিল্লার ঘটনায় কক্সবাজার থেকে ইকবাল আটক কুমিল্লা ইউনিভার্সিটি ট্রাভেলার্স সোসাইটির যাত্রা শুরু বাঙ্গরায় হত্যা মামলার পলাতক আসামী গ্রেফতার কুমিল্লায় কোরআন অবমাননার ঘটনার মূলহোতা গ্রেপ্তার “কুমিল্লা টাইমস টিভি” দেশের অন্যতম সংবাদ মাধ্যম চিত্রাংকনে জেলায় পর্যায়ে সাফল্য অর্জন করেছে মুরাদনগরের শাফি

মুক্তিযোদ্ধা ও সন্তানদের পুলিশি হামলার প্রতিবাদে মুক্তিযোদ্ধা সন্তান সংসদ রাঙ্গামাটি কমান্ড কাউন্সিলের মানববন্ধন

  • আপডেটের সময় : শুক্রবার, ৫ মার্চ, ২০২১
  • ৫৪৪ বার পড়া হয়েছে
মুক্তিযোদ্ধা ও সন্তানদের পুলিশি হামলার প্রতিবাদে মুক্তিযোদ্ধা সন্তান সংসদ রাঙ্গামাটি কমান্ড কাউন্সিলের মানববন্ধন

জাকিয়া আক্তার, রাঙ্গামাটি প্রতিনিধিঃ

কোটাসহ ৭দফা দাবীতে শাহাবাগে শান্তিপূর্ণ লাগাতার অবস্থান কর্মসূচিতে পুলিশের জলকামান নিক্ষেপ ও লাঠিচার্জের প্রতিবাদে রাঙ্গামাটি প্রেস ক্লাবের সামনে এক মানববন্ধন এর আয়োজন করে বাংলাদেশ মুক্তি যোদ্ধা সন্তান সংসদ রাঙ্গামাটি জেলা কমান্ড কাউন্সিল।

উক্ত মানববন্ধন ও প্রতিবাদ কর্মসুচিতে উপস্থিত ও বক্তব্যে রাখেন চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিটির সভাপতি কপিল উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক আব্বাস উদ্দিন, সিনিয়র সহ সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম চট্টগ্রাম মহানগর এর আহবায়ক মনজুরুল ইসলাম, সদস্য সচিব জুয়েল তাজবী, রাঙামাটি জেলার আহবায়ক মো রাসেল তালুকদার, সদস্য সচিব মোঃ শাহ আলম বাদশা, যুগ্ম আহবায়ক ফাহমিদা আক্তার, লংগুদুর উপজেলা আহবায়ক জাহাঙ্গীর আলম, সদস্য সচিব মোঃ আলী আহাম্মদ, কাউখালী উপজেলা আহবায়ক মোঃ মাইন উদ্দিন, কাপ্তাই উপজেলা সদস্য সচিব মোঃ সুমন, আওয়ামী মুক্তিযোদ্ধা লীগের সহসভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা শরিফ জিন্না, রাঙামাটি জেলার মুক্তিযোদ্ধা সংসদ এর ডেপুটি কমান্ডার জনাব আব্দুল শুক্কুর তালুকদার, আরো উপস্থিত ছিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা বাবুল মগ, বীর মুক্তিযোদ্ধা সুকুমার মুসসূদী, বীর মুক্তিযোদ্ধা সুনীল সহ আরো অনেক বীর মুক্তিযোদ্ধারা উপস্থিত ছিল।

এ সময় বক্তরা বলেন মহিলা সহ অর্ধশত বেশি মুক্তিযুদ্ধো, মুক্তিযোদ্ধার সন্তান ও প্রজন্ম পুলিশি বর্বর জলকামান নিক্ষেপ ও লাঠিচার্জের স্বীকার হয়েছে, এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান বক্তারা। বক্তরা আরও বলেন ৭ দফা দাবী আদায় না হওয়া পর্যন্ত আমাদের আন্দোলন অব্যাহত থাকবে।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সন্তান সংসদের আয়োজিত গত ২৩ শে ফেব্রুয়ারি শাহাবাগে অবস্থান কর্মসুচিতে ঢাকা, চট্টগ্রাম, কুমিল্লা, চাঁদপুর, রাজশাহী, শরীয়তপুর, ময়মনসিংহ, টাঙ্গাইল, রংপুর, সিলেট সহ বিভিন্ন জেলা ও উপজেলার প্রায় ৯ থেকে ১০ সহস্রাধিক নেতাকর্মীদের উপস্থিতিতে বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সন্তান সংসদের শান্তি পূর্ণ অবস্থা কর্মসুচিত পালন কালে আন্দোলনরত নেতাকর্মী, মুক্তিযোদ্ধা, মুক্তিযোদ্ধাদের সন্তান, প্রজন্ম ও গনমাধ্যম কর্মীদের উপর সন্ধ্যার একটু আগে অতর্কিত লাঠিচার্জ ও জলকামান নিক্ষেপ শুরু করে পুলিশ।

এসময় অবস্থান কর্মসুচিতে অংশ গ্রহণকারী আন্দোলনরত নেতাকর্মী, মুক্তিযোদ্ধা, মুক্তিযোদ্ধাদের সন্তান, প্রজন্ম ও উপস্থিত গনমাধ্যম কর্মীরা বিভিন্ন দিকে আতংকে ছত্রভঙ্গ হয়ে পরে।

পুলিশের এই অতর্কিত হামলায় অবস্থান কর্মসূচিতে উপস্থিত বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সন্তান সংসদ প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান সোলেমান মিয়া, প্রতিষ্ঠাতা মহাসচিব শফিকুল ইসলাম বাবু, ভাইস চেয়ারম্যান সজীব সরকার, মিজানুর রহমান, ইয়াসিন আকন্দ, প্রকৌশলী সানাউল্লাহ, মোঃ হারুনুর রশীদ তরফদার, তসলিমা রেজা, যুগ্ম মহাসচিব ফারুক খান, সাংগঠনিক সম্পাদক নাজমুল হুদা, তিতুমীরসহ চট্টগ্রাম বিভাগে সভাপতি কফিলউদ্দীন, সাধারণ সম্পাদক আব্বাস উদ্দিন, সাংগঠনিক সম্পাদক সাংবাদিক সাজ্জাদ হোসেন শিমুল, চট্টগ্রাম মহানগর আহবায়ক মন্জুরুল ইসলাম, সদস্য সচিব জুয়েল তজবি, কুমিল্লা জেলা আহবায়ক সাংবাদিক ফয়সাল মবিন পলাশ সহ ৭০/৮০ জন আন্দোলনরত নেতাকর্মী, মুক্তিযোদ্ধা, মুক্তিযোদ্ধাদের সন্তান, প্রজন্ম ও উপস্থিত বেশ কয়েকজন গনমাধ্যম কর্মীরা গুরুতরভাবে আহত হন।

মুক্তিযোদ্ধা সন্তানদের দাবিগুলোর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো- চাকরিতে ৩০ শতাংশ কোটা সংরক্ষণ, সাংবিধানিক স্বীকৃতি ও মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সুরক্ষা আইন পাস করা, মুক্তিযোদ্ধা কল্যাণ ট্রাস্টের পরিত্যক্ত সম্পত্তি দখলমুক্ত করে লাভজনক প্রতিষ্ঠানে রূপান্তর করা, হাসপাতাল, সরকারি অফিস, বিমানবন্দরসহ সব জায়গায় মুক্তিযোদ্ধাদের ভিআইপি মর্যাদা দান ইত্যাদি।


কুমিল্লা টাইমস’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন

বিজ্ঞাপন

সকল স্বত্বঃ কুমিল্লা টাইমস কতৃক সংরক্ষিত

Site Customized By NewsTech.Com
x
error: CONTENT IS PROTECETED !!