বিজ্ঞপ্তি:
"কুমিল্লা টাইমস টিভিতে" আপনার প্রতিষ্ঠান অথবা নির্বাচনী প্রচারনার জন্য এখনি যোগাযোগ করুন : ০১৬২২৩৮৮৫৪০ এই নম্বরে
শিরোনাম:
মুরাদনগরে বসুন্ধরা শুভসংঘের উদ্যোগে সেলাই প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের উদ্বোধন ‘বাবা, আমাদের বাঁচাও বলে চিৎকার করছিল আমার দুই মেয়ে’ বেইলি রোডের অগ্নিকান্ড; খাবার আনতে গিয়ে প্রাণ হারাল মুরাদনগরের পম্পা সারাদেশে সেরা হলো কুমিল্লা জেলা পুলিশ অস্তিত্ব সংকটে তিতাস নদী, রূপ নিয়েছে আবাদি জমিতে কুমিল্লা জেলা পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়ন, কোম্পানিগঞ্জ শাখার কমিটি গঠন বিরল সূর্যগ্রহণ, দিন হবে রাতের মতো অন্ধকার! মুরাদনগরে পরীক্ষায় নকল দিতে গিয়ে ৩জন আটক; ২বছরের সাজা মার্কিন প্রতিনিধি দলের কৃষি কার্যক্রম পরিদর্শন মুরাদনগরে ভাষা শহীদদের স্মরনে প্রভাতফেরি আজ থেকে এক মাস বন্ধ সব কোচিং সেন্টার মুরাদনগরে স্থানীয় সম্পদ আহরণ ও ব্যবস্থাপনা বিষয়ক কোর্সের উদ্বোধন কুমিল্লায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৫ টেলিভিশন জার্নালিস্ট এসোসিয়েশন, কুমিল্লার নতুন কমিটি ঘোষনা মুরাদনগরে অবৈধ সীসা কারখানা সিলগালা, দুই লক্ষ টাকা জরিমানা

বন্যার্তদের মাঝে ত্রান সামগ্রী বিতরণ, “বন্যার্ত কোন পরিবারই অভুক্ত থাকবে না” বললেন – সাংসদ আহসানুল ইসলাম টিটু

  • আপডেটের সময় : সোমবার, ৩ আগস্ট, ২০২০
  • ৪৯৮ বার পড়া হয়েছে
বন্যার্ত কোন পরিবারই অভুক্ত থাকবে না - সাংসদ আহসানুল ইসলাম টিটু
বন্যার্ত কোন পরিবারই অভুক্ত থাকবে না - সাংসদ আহসানুল ইসলাম টিটু

টাংগাইল প্রতিনিধিঃ

তিনি একজন সাংসদ, তিনি আহসানুল ইসলাম টিটু, টাংগাইল ৬ (নাগরপুর-দেলদুয়ার) এর সংসদ সদস্য তিনি, মাত্র তিন মাস আগে গত মে মাসের ২৪ তারিখ তিনি তার পিতাকে হারিয়েছেন এই করোনা মহামারীতেই, তার পিতা আলহাজ্ব মকবুল হোসেন ছিলেন ধানমন্ডি-মোহাম্মদপুরের সাবেক সংসদ সদস্য, করোনার মধ্যে তিনি ত্রাণ নিয়ে ছুটে বেড়িয়েছেন মানুষের দরজায় দরজায়, কিন্তু এই মরণব্যাধী করোনাই উনার প্রান কেড়ে নিয়েছেন ।

পিতার মৃত্যুর শোক বুকে নিয়েই তিনি ছুটে এসেছেন তার নির্বাচনী এলাকা টাংগাইলের নাগরপুর ও দেলদুয়ারের বন্যার্ত মানুষের কাছে, ঈদের আগে টানা ৮ দিন বানভাসী মানুষের পাশে থেকে তাদের সাহ্যায্য করে গেছেন ।

বন্যার্তদের মাঝে ত্রান সামগ্রী বিতরণের সময় আহসানুল ইসলাম টিটু বলেন, নাগরপুর-দেলদুয়ারের প্রতিটি বন্যার্ত পরিবারকে ত্রাণের আওতায় আনা হবে। বন্যার্ত কোন পরিবারই অভুক্ত থাকবে না। তিনি আরো বলেন, আমাদের দেশে প্রায়শই প্রাকৃতিক দূর্যোগ দেখা দেয়। আর এই দূর্যোগকে মোকাবিলা করেই এ দেশের মানুষ বেচেঁ থাকে। সকল দূর্যোগে যিনি সর্বদা অসহায় মানুষের পাশে থাকেন তিনি আমাদের প্রাণপ্রিয় নেত্রী মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তাঁর সফল নেতৃত্বের ফলেই আমরা সকল দূর্যোগ কাটিয়ে উঠতে সক্ষম হয়েছি। এবারও বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের দুঃখ-দূর্দশা লাঘবে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছে শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন আওয়ামী লীগ সরকার।

ইতিমধ্যে নাগরপুর ও দেলদুয়ার উপজেলার ২০ টি ইউনিয়নের বন্যার্ত মানুষের মাঝে ১৬০ মেট্রিক টন চালের সাথে শুকনো খাবার হিসেবে চিঁড়া, বিস্কুট, ডান, তেল ইত্যাদি এবং শিশু খাদ্য হিসেবে গুড়ো দুধ, সুজি, চিনি ও নুডলস বিতরণ করা হয়েছে।

এছাড়া নতুন করে দুই উপজেলার বন্যার্ত মানুষের জন্য ১০০ মেট্রিক টন চাল, ২ লাখ টাকার শিশুখাদ্য ও ২ লাখ টাকার গোখাদ্য বরাদ্দ হয়েছে এবং ঈদুল আযহা’র আগে ভিজিএফ কর্মসূচির আওতায় আমরা নাগরপুর উপজেলার ১৬ হাজার এবং দেলদুয়ার উপজেলার ১৩ হাজার অসহায় পরিবারের মাঝে ১০ কেজি করে চাল বিতরণ করেছি।

যারা এখনও খাদ্য সহায়তা পাননি তারাও দ্রুত ত্রাণের আওতায় চলে আসবেন। আপনারা ধৈর্য্য ধরে এ দূযোর্গকে মোকাবেলা করুন আমরা আপনাদের পাশে আছি, ইনশাআল্লাহ।


কুমিল্লা টাইমস’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন

বিজ্ঞাপন

সকল স্বত্বঃ কুমিল্লা টাইমস কতৃক সংরক্ষিত

Site Customized By NewsTech.Com