বিজ্ঞপ্তি:
"কুমিল্লা টাইমস টিভিতে" আপনার প্রতিষ্ঠান অথবা নির্বাচনী প্রচারনার জন্য এখনি যোগাযোগ করুন : ০১৬২২৩৮৮৫৪০ এই নম্বরে
শিরোনাম:
মুরাদনগরে ভাষা শহীদদের স্মরনে প্রভাতফেরি আজ থেকে এক মাস বন্ধ সব কোচিং সেন্টার মুরাদনগরে স্থানীয় সম্পদ আহরণ ও ব্যবস্থাপনা বিষয়ক কোর্সের উদ্বোধন কুমিল্লায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৫ টেলিভিশন জার্নালিস্ট এসোসিয়েশন, কুমিল্লার নতুন কমিটি ঘোষনা মুরাদনগরে অবৈধ সীসা কারখানা সিলগালা, দুই লক্ষ টাকা জরিমানা ডাকাতির টাকা ভাগর দ্বন্দ্বে আ. লীগ নেতা খুন কুমিল্লায় যুবককে হত্যার দায়ে তিনজনের যাবজ্জীবন কুসিকের উপনির্বাচনে মনোনয়নপত্র কিনলেন সাক্কু মুরাদনগরে অনুমোদনহীন হাসপাতাল সিলগালা, লাখ টাকা জরিমানা বাবুটিপাড়া ইউনিয়নে ২০০ টি পরিবারে স্বপ্নচূড়ার কম্বল বিতরণ বাঞ্ছারামপুরে চালক’কে হত্যা করে অটোরিক্সাসা ছিনতাই কুমিল্লা-৩ (মুরাদনগর) আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী জাহাঙ্গীর আলম সরকার নির্বাচিত দেবিদ্বারে কাজী সাফিয়া সুলাইমান এতিমখানার ১০ হাফেজকে পাগড়ী প্রদান মুরাদনগরে নৌকায় ভোট চেয়ে ইউসুফ হারুনের উঠান বৈঠক

পরাজিত প্রার্থী কাটলেন সেচের ড্রেন, অনিশ্চিত ৫০একর জমির চাষাবাদ

  • আপডেটের সময় : বুধবার, ৬ সেপ্টেম্বর, ২০২৩
  • ১৬৯ বার পড়া হয়েছে
  • মুরাদনগর (কুমিল্লা) প্রতিনিধি:

কুমিল্লার মুরাদনগরে ইউপি নিবাচনে সদস্য পদে পরাজিত প্রার্থী কতৃক বিজয়ী প্রার্থীর সেচ প্রকল্পের ড্রেন কেটে ফেলার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ড্রেন কেটে ফেলায় এখন সেচ বঞ্চিত হয়ে অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে প্রায় ৫০একর জমির চাষাবাদ। এমন কর্মকান্ডে বিপাকে পড়েছেন এলাকার শতাধিক কৃষক।

গত ২৯শে আগস্ট উপজেলার বাঙ্গরা বাজার থানাধীন পূর্বধইর পশ্চিম ইউনিয়নের মহেশপুর গ্রামে এই ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, উপজেলার মহেশপুর গ্রামের প্রায় ১০০একর জমি নিয়ে বিএডিসির অনুমোদিত পানি সেচ প্রকল্পের কাজটি ১৯৯২ থেকে পরিচালনা করে আসছে পূর্বধইর পশ্চিম ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য আব্দুর রহিম সরকার।

রহিম সরকার বলেন, ৩৫ বছর যাবৎ আমি এই ডিপকলের দায়িত্ব পালন করছি। এতোদিন কেউ কোন প্রকার ক্ষতি করেনি। কিন্তু গত ইউপি নির্বাচনে আমার প্রতিদ্বন্দি প্রার্থী খোরশেদ আলম সরকার হেরে যাওয়ায় আমার প্রতি তার ক্ষোভ সৃষ্টি হয়, যার প্রেক্ষিতে সে অমল সরকার নামে একজনের জমি ৩য় পক্ষ হিসেবে বন্ধক নিয়ে গত মঙ্গলবার (২৯ আগষ্ট) সেই জমির পাশ দিয়ে যাওয়া সেচ প্রকল্পের ড্রেনটি কেটে প্রায় ৫০ একর জমির সেচ কার্যক্রম বন্ধ করে দিয়েছে। ড্রেন কেটে ফেলায় এখন সেচ বঞ্চিত হয়ে অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে প্রায় ৫০একর জমির চাষাবাদ। এখন সেই জমি গুলোতে পানির সেচ দেয়ার কোন বিকল্প ব্যবস্থা না থাকায় বিপাকে পড়েছেন এলাকার বহু কৃষক। এব্যাপারে ৩রা সেপ্টেম্বর বাঙ্গরা বাজার থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছি।
এ বিষয়ে তিনি বাঙ্গরাবাজার থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেছেন বলে জানান।

মহেশপুর গ্রাামের কনু মিয়া বলেন, দীর্ঘদিন যাবৎ এই ডিপকলটি আমাদের এই এলাকার সব ফসলী জমিতে পানি সরবারহ করে আসছে। নির্বাচনে জয় পরাজয় আছে। তাই বলে কি কেউ এমন কাজ করতে পারে? এঘটনার সাথে জড়িত ব্যাক্তিদের আইনের আওতায় আনা হোক।

কৃষক নশু মিয়া বলেন, খোরশেদ আলম আগেও একটা ঝামেলা করেছে যেটা ইউএনও স্যার ও প্রশাসনের কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে এসে সমাধান করে দিয়ে গেছে। কিন্তু সে এখন ড্রেন কেটে আমাদের চাষাবাদ বন্ধ করে দিয়েছে। আমরা তার এই অসৎ কর্মকান্ডের সঠিক বিচার চাই।

এব্যাপারে অভিযুক্ত খোরশেদ আলম বলেন, রহিম মেম্বারদের সাথে ৩০ বছর ধরে আমাদের পারিবারিক দন্দ চলে আসছে, নির্বাচনের পর সে দুই বছর ধরে আমার জমিতে সেচের পানি দেয়নি। তাই আমি ড্রেন কেটে দিয়েছি।

এবিষয়ে মুরাদনগর উপজেলা বিএডিসির উপ—সহকারী প্রকৌশলী কাউছার আল মামুন বলেন সেচ কমিটির সভাপতি বরাবর অভিযোগ দিলে সমাধানের জন্য ব্যবস্থা নেয়া হবে।

বাঙ্গরা বাজার থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রিয়াজ উদ্দিন চৌধুরী বলেন এই ঘটনায় রহিম মেম্বার থানায় জিডি করেছেন। তদন্ত করে আদালতে প্রতিবেদন দাখিল করা হবে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো: আলাউদ্দিন ভূইয়া জনি বলেন, বিষয়টি আমার জানা নেই। খোঁজ নিয়ে সমস্যা সমাধানের জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।


কুমিল্লা টাইমস’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন

বিজ্ঞাপন

সকল স্বত্বঃ কুমিল্লা টাইমস কতৃক সংরক্ষিত

Site Customized By NewsTech.Com