বিজ্ঞপ্তি:
"কুমিল্লা টাইমস টিভিতে" আপনার প্রতিষ্ঠান অথবা নির্বাচনী প্রচারনার জন্য এখনি যোগাযোগ করুন : ০১৬২২৩৮৮৫৪০ এই নম্বরে
শিরোনাম:
মুরাদনগরে স্কুল ছাত্রীকে উত্ত্যক্ত, যুবক গ্রেপ্তার মুরাদনগরে সুপ্রীমকোর্টের নির্দেশ অমান্য করায় স্বরাষ্ট্রসচিবসহ ১৩ জনকে উকিল নোটিশ মুরাদনগরে গ্রামীণ ঐতিহ্যের শীতকালীন পিঠা উৎসব কুমিল্লার বাঙ্গরায় জেলা পরিষদের সুপার মার্কেটের শুভ উদ্বোধন মুরাদনগরে স্মার্ট বাংলাদেশ বিনিমার্ণ ও মানসম্মত শিক্ষাকরনে সভা মুরাদনগরে জমির মাটি রক্ষা করতে গিয়ে কৃষক খুন প্রেমিক-প্রেমিকা একসঙ্গে বিষপান, প্রেমিকার মৃত্যু বাঙ্গরায় গাঁজাসহ ৩ নারী মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার মুরাদনগরে ডাকাত সন্দেহে দুই যুবকে পিটিয়ে হত্যার প্রতিবাদে মানববন্ধন শাঁখা—সিঁদুর পরে পূজামণ্ডপে গিয়ে সোনার চেইন ছিনতাই: ৩ মুসলিম নারী আটক সোনারামপুর যুব উন্নয়ন সমবায় সমিতির প্রথন প্রতিষ্ঠা বার্ষিকি পালিত মুরাদনগরে গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক বাঙ্গরাবাজার থানা যুবলীগের উদ্যোগে শীতবস্ত্র বিতরন কুমিল্লা পেশাজীবী সাংবাদিক ইউনিয়নের নতুন কমিটি ঘোষণা মুরাদনগরে ডাকাত সন্দেহে গণপিটুনিতে দুই যুবকের মৃত্যু

কুমিল্লায় ৩শ টাকায় বিক্রি হচ্ছে গরুর চামড়া, ব্যবসায়ীরা হতাশ

  • আপডেটের সময় : সোমবার, ৩ আগস্ট, ২০২০
  • ৩৫২ বার পড়া হয়েছে
কুমিল্লায় ৩শ টাকায় বিক্রি হচ্ছে গরুর চামড়া ব্যবসায়ীরা হতাশ
কুমিল্লায় ৩শ টাকায় বিক্রি হচ্ছে গরুর চামড়া ব্যবসায়ীরা হতাশ

কুমিল্লা প্রতিনিধিঃ

গত বছর কোরবানির ঈদে সারাদেশের মতো কুমিল্লাতেও সিন্ডিকেটের কবলে পড়ে অনেক চামড়া ব্যবসায়ী সর্বস্বান্ত হয়েছিলেন। বঞ্চিত হয়েছিল মাদ্রাসাসহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের এতিম শিক্ষার্থীরা। দাম না পেয়ে অনেকেই পশুর চামড়া মাটি চাপা দিয়েছিলেন। আবার অনেকেই ফেলে দিয়েছিলেন নদীতে।

তবে এবার কুমিল্লায় ঘটেছে ভিন্ন ঘটনা। এ বছর পশুর চামড়া কিনতে মৌসুমি ক্রেতারা আসেননি। তাই ক্রেতা না পেয়ে অনেকেই স্থানীয় মাদ্রাসা ও এতিমখানায় দান করে দেন কোরবানির পশুর চামড়া। বিনামূল্য পাওয়া পশুর চামড়া কিছুক্ষণ সংরক্ষণ করেন জেলার বিভিন্ন এতিমখানা ও মাদ্রাসা পরিচালনা কমিটির সদস্যরা। এরপর সেই চামড়া বিক্রি করে দেন গড়ে ৩শ টাকা করে।

গত (১ আগস্ট) কোরবানির ঈদের দিন বিকেলের পর থেকে এমন চিত্রই দেখা গেছে পুরো কুমিল্লা জুড়ে। কুমিল্লা সদরের বাসিন্দা নুরে আলম বাবু এ বছর কোরবানির জন্য ১ লাখ ৫৫ হাজার টাকা মূল্যর গরু কিনেছিলেন। তার প্রতিবেশী মিন্টু মিয়াও গরু কিনেন ৮৫ হাজার টাকা দিয়ে। ক্রেতা না পেয়ে গরুর চামড়া দিয়ে দিলেন স্থানীয় মাদ্রাসায়। সেখানে রাতে ছোট বড় সব চামড়াই গড়ে ৩শ টাকা করে বিক্রি হয়েছে। আর এতেই স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলে নুরে আলম বাবু,ও মিন্টু মিয়া জানান, গত বছরের মতো এই বছর অন্তত তাদের পশুর চামড়া গোমতী নদীতে ফেলে দিতে হয়নি। এ বছর ক্রেতা না পেলেও স্থানীয় মাদ্রাসায় দান করছেন তারা। পরে সেখান থেকে পাইকারি ক্রেতারা চামড়া কিনে নিয়ে গেছেন।

জেলার আদর্শ সদর উপজেলার কালখড়পাড় হাফেজিয়া মাদ্রাসা ও এতিমখানার প্রতিষ্ঠাতা সদস্য মো. খোরশেদ আলম জানান, পশু কোরবানির পরে ক্রেতা না আসায় অনেকেই মাদ্রাসায় চামড়া দান করেন। কালখড়পাড় হাফেজিয়া মাদ্রাসা ও এতিমখানায় ১৫৭টি চামড়া পাওয়া যায়। পরে রাতে চামড়ার পাইকার আসলে প্রতিটি চামড়া গড়ে ৩১০ টাকা করে বিক্রি করে দেন তারা।

এদিকে, জেলার সবচেয়ে বড় চামড়ার বাজার কুমিল্লা নগরীর ঋষিপট্টিতেও একই দামে চামড়া ক্রয় করেছেন ব্যবসায়ীরা। ঋষিপট্টির চামড়া ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি রতন ঋষি জানান, সিন্ডিকেটের কারণে গত বছর চামড়ার দরপতন হয়। ওই বছরর চামড়া কিনে আমরা অনেক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছি। তবে এ বছর সিন্ডিকেট না থাকলেও চামড়ার বৈদেশিক চাহিদা কম রয়েছে। তাই চামড়ার দর কম।


কুমিল্লা টাইমস’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন

বিজ্ঞাপন

সকল স্বত্বঃ কুমিল্লা টাইমস কতৃক সংরক্ষিত

Site Customized By NewsTech.Com