বিজ্ঞপ্তি:
"কুমিল্লা টাইমস টিভিতে" আপনার প্রতিষ্ঠান অথবা নির্বাচনী প্রচারনার জন্য এখনি যোগাযোগ করুন : ০১৬২২৩৮৮৫৪০ এই নম্বরে
শিরোনাম:
মুরাদনগরে গোল্ডেন জিপিএ—৫ প্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের মাঝে ল্যাপটপ বিতরণ রাতের আধারে মাটি কাটায় ইটভাটাকে ২ লাখ টাকা জরিমানা মুরাদনগরে কৃষক হত্যার প্রধান আসামি গ্রেপ্তার কুমিল্লা-সিলেট সড়কে ইটভাটার মাটিতে ঘটছে দুর্ঘটনা ৩ বছরেও চালু হয়নি অর্ধকোটি টাকার বায়োমেট্রিক হাজিরাযন্ত্র শ্রীকাইল সরকারি কলেজে নবীন বরণ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে রামচন্দ্রপুর অধ্যাপক আবদুল মজিদ কলেজে নবীন বরণ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত মুরাদনগরে ভুমি খেকোর হাতে বিনষ্ট প্রায় ৭শ বিঘা ফসলি জমি মুরাদনগরে ২ শিশুকে হত্যা; নারীর মৃত্যুদণ্ড যাবজ্জীবন ১ মুরাদনগরে দিনব্যাপী অভিযানে ৪টি ড্রেজার মেশিন জব্দ মুরাদনগরে বখাটের হাতে জিম্মি প্রবাসী পরিবার মুরাদনগরে স্কুল ছাত্রীকে উত্ত্যক্ত, যুবক গ্রেপ্তার মুরাদনগরে সুপ্রীমকোর্টের নির্দেশ অমান্য করায় স্বরাষ্ট্রসচিবসহ ১৩ জনকে উকিল নোটিশ মুরাদনগরে গ্রামীণ ঐতিহ্যের শীতকালীন পিঠা উৎসব কুমিল্লার বাঙ্গরায় জেলা পরিষদের সুপার মার্কেটের শুভ উদ্বোধন

কুমিল্লায় যৌতুকের জন্য স্ত্রী হত্যা, স্বামীর মৃত্যুদণ্ড

  • আপডেটের সময় : মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর, ২০২২
  • ১৩৭ বার পড়া হয়েছে

ডেস্ক রিপোর্ট:

যৌতুকের টাকা না পেয়ে আবদুল কাদের ২০০৯ সালের ২৪ জুন স্ত্রীকে পিটিয়ে হত্যা করেন।

কুমিল্লায় যৌতুকের টাকা না পেয়ে স্ত্রীকে হত্যার দায়ে এক ব্যক্তির মৃত্যুদণ্ড হয়েছে।

মঙ্গলবার কুমিল্লা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনাল-১ এর বিচারক মোহাম্মদ আবদুল্লাহ আল মামুন ১৩ বছর আগের এই মমালার রায় দেন।

দণ্ডিত আবদুল কাদের কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম উপজেলার চকলক্ষ্মীপুর গ্রামের প্রয়াত মালু মিয়ার ছেলে।

নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী প্রদীপ কুমার দত্ত জানান, দণ্ডিত আসামি আবদুল কাদেরের বিয়ে হয় ২০০৯ সালের ফেব্রুয়ারিতে। বিয়ের সময় ৫০ হাজার টাকা যৌতুক দাবি করেছিলেন কাদের। কনের পরিবার সে সময় নগদ ২০ হাজার টাকা দেয়। কিন্তু বাকি ৩০ হাজার টাকার জন্য কাদের স্ত্রীকে প্রায়ই মানসিক ও শারিরীক নির্যাতন করতেন।

মামলায় অভিযোগ করা হয়, ২০০৯ সালের ২৪ জুন রাতে আবদুল কাদের স্ত্রীকে নির্যাতন ও মারধর করেন; এতে স্ত্রীর মৃত্যু হয়। তখন লাশ পুকুরে ফেলে কাদের প্রচার করেন মৃগী রোগে তার স্ত্রী মারা গেছেন।

এ ঘটনায় তার স্ত্রীর বড় বোন বাদী হয়ে চৌদ্দগ্রাম থানায় পরদিন একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

প্রদীপ কুমার দত্ত জানান, দীর্ঘ শুনানির পর মঙ্গলবার আসামি আবদুল কাদেরকে ফাঁসির আদেশ দেওয়া হয়; একই সঙ্গে তার ১০ হাজার টাকা জরিমানাও করা হয়। এ ছাড়া মামলার অপর তিন আসামিকে বেকসুর খালাস দেওয়া হয়েছে।

কুমিল্লা আদালতের পুলিশ পরিদর্শক মুজিবুর রহমান বলেন, রায় ঘোষণার সময় আসামি আবদুল কাদের আদালতে উপস্থিত ছিলেন। তাকে এরই মধ্যে কুমিল্লা কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

সংবাদ: বিডিনিউজ২৪.কম


কুমিল্লা টাইমস’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন

বিজ্ঞাপন

সকল স্বত্বঃ কুমিল্লা টাইমস কতৃক সংরক্ষিত

Site Customized By NewsTech.Com