বিজ্ঞপ্তি:
"কুমিল্লা টাইমস টিভিতে" আপনার প্রতিষ্ঠান অথবা নির্বাচনী প্রচারনার জন্য এখনি যোগাযোগ করুন : ০১৬২২৩৮৮৫৪০ এই নম্বরে
শিরোনাম:
মুরাদনগরে ভূমি সেবা সপ্তাহের সমাপনী; শ্রেষ্ঠ কর্মকর্তাদের সম্মাননা প্রদান ঢাকাস্থ মুরাদনগর ছাত্রকল্যাণ পরিষদের সভাপতি আমিন ও সাধারণ সম্পাদক হাবিব শ্রদ্ধা ও ভালোবাসায় নার্গিস আফজালকে চিরো বিদায় ধর্ষণ মামলায় কুমিল্লা থেকে প্রিন্স মামুন গ্রেফতার ব্যবসায়ীকে তিন দিনের মধ্যে মেরে ফেলার হুমকি, নিরাপত্তা চেয়ে থানায় অভিযোগ অনিয়মের সংবাদ প্রকাশে সুফল পাচ্ছে এলাকাবাস কুমিল্লায় বিএনপির দুই গ্রুপে সংঘর্ষ, গুলি-ককটেল বিস্ফোরণ বিশ্ব মুক্ত গণমাধ্যম দিবসে কুমিল্লায় সম্মাননা পেলেন ৭ সংবাদকর্মী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ১৭জন প্রার্থীর মনোনয়ন পত্র দাখিল কুমিল্লায় তীব্র গরমে একই বিদ্যালয়ের ৭ শিক্ষার্থী অসুস্থ মুরাদনগরে নাগরিক ঐক্য পরিষদের প্রার্থী ঘোষনা মধ্যরাতে অগ্নিকান্ডে ভস্মীভূত ১৫ব্যবসা প্রতিষ্ঠান মুরাদনগরে বিএনপির ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত মুরাদনগরে সড়কের সংস্কার কাজে অনিয়ম বিলুপ্তির পথে কুমিল্লার তাঁতে তৈরি আসল খাদি

কুবির দত্ত হলে মধ্যরাতে দেশীয় অস্ত্রসহ বহিরাগত যুবক প্রবেশ

  • আপডেটের সময় : মঙ্গলবার, ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ৬০৫ বার পড়া হয়েছে

রকিবুল হাসান, কুবি প্রতিনিধিঃ

মধ্যরাতে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ ধীরেন্দ্রনাথ দত্ত হলে এক বহিরাগত যুবক প্রবেশ করে ও চাপাতি সদৃশ একটি দেশীয় অস্ত্র নিয়ে হল এবং বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় ঘুরাঘুরি করে। এসময় বিশ্ববিদ্যালয় জুড়ে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়লে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরিয়াল বডি, নিরাপত্তা কর্মী এবং শিক্ষার্থীদের সহযোগীতায় বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল ফটকের সামনে থেকে তাকে আটক করা হয়।

সোমবার (২৭ সেপ্টেম্বর) রাত আনুমানিক পৌনে বারোটার দিকে এ ঘটনা ঘটে। ঐ যুবককে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে এবং তার পরিবারের সদস্যদের সাথে যোগাযোগ করে জানা যায় ওই যুবক মানসিকভাবে অসুস্থ। পরবর্তীতে তাকে পুলিশের মধ্যস্থতায় পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

প্রক্টরিয়াল বডির জিজ্ঞাসাবাদে এই যুবক জানায়, তার নাম নুরন্নবী নিলয়, পিতার নাম জাহাঙ্গীর। তার বাড়ি কুমিল্লা সদর উপজেলার বাংলাবাজার সংলগ্ন ২৩ নং গেইট এলাকায়। ঐ যুবকের কাছ থেকে একটি বড় চাপাতি সদৃশ দেশীয় অস্ত্র, হিন্দীতে লিখিত একটি চিরকুট, একটি এটিএম কার্ড ও একটি কম্পিউটার চিপ পাওয়া যায়।

প্রতক্ষ্যদর্শী সূত্রে জানা যায়, রাত প্রায় সাড়ে এগারোটার পর এই যুবককে চাপাতি সদৃশ একটি দেশীয় অস্ত্র নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস এবং হলে ঘুরাঘুরি করতে দেখা যায়। পরে হল থেকে বের হয়ে সে মূল ফটক সংলগ্ন মামা হোটেলের সামনে গেলে সেখান হতে বিশ্ববিদ্যালয়ের নিরাপত্তা কর্মীরা তাকে ধরে ফেলে। এসময় বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী প্রক্টর ফয়জুল ইসলাম ফিরোজ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে এই যুবককে প্রক্টর অফিসে নিয়ে যায়। পরে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ শেষে তাকে পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

তবে এঘটনায় একাধিক শিক্ষার্থী ক্ষোভ প্রকাশ করে বলে, প্রায়ই নিরাপত্তাকর্মীদের দায়িত্বে অবহেলার কারণে বহিরাগতরা অবাধে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন স্থাপনায় প্রবেশ করে। বিশেষকরে হলের গেটগুলোতে নিরাপত্তাকর্মীরা যথাযথভাবে দায়িত্ব পালন করে না। বিশ্ববিদ্যালয়ের নিরাপত্তা শাখার নজরদারীর অভাবে নিরাপত্তাকর্মীরা যথাযথভাবে দায়িত্ব পালন করেনা। এতে যেকোন সময় বড় দূর্ঘটনা ঘটতে পারে। বিশ্ববিদ্যালয়ের নিরাপত্তা ব্যবস্থা আরো জোরদার করা উচিত।

এবিষয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত বিশ্ববিদ্যালয়ে সহকারী প্রক্টর ফয়জুল ইসলাম ফিরোজ বলেন, আমরা খবর পেয়ে ক্যাম্পাস গেইট থেকে তাকে আটক করে প্রক্টর অফিসে নিয়ে যাই। পরবর্তীতে তাকে পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়। তবে প্রাথমিকভাবে মনে হয়েছে সে মানসিক ভারসাম্যহীন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. কাজী মোহাম্মদ কামাল উদ্দীন বলেন, আমাদের মেইন গেইট এবং হল গুলোতে নিরাপত্তা কর্মীরা দায়িত্বে থাকার পর অস্ত্রসহ এভাবে বহিরাগতদের প্রবেশ উদ্বেগজনক। যাতে এধরনের ঘটনার পুনরাবৃত্তি না হয় এবং যারা দায়িত্বে অবহেলা করছে তাদের বিষয়ে ব্যবস্থা নিতে আমি বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের সাথে কথা বলবো।
এবিষয়ে কোটবাড়ী পুলিশ ফাঁড়ির উপ পরিদর্শক জেসমিন চাকমা বলেন,খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে গিয়েছি। মনে হয়েছে ছেলেটি মানসিকভাবে অসুস্থ। আমরা তার অভিবাবককে তাকে ডেকে তাদের জিম্মায় দিয়েছি।


কুমিল্লা টাইমস’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন

বিজ্ঞাপন

সকল স্বত্বঃ কুমিল্লা টাইমস কতৃক সংরক্ষিত

Site Customized By NewsTech.Com