বিজ্ঞপ্তি:
"কুমিল্লা টাইমস টিভিতে" আপনার প্রতিষ্ঠান অথবা নির্বাচনী প্রচারনার জন্য এখনি যোগাযোগ করুন : ০১৬২২৩৮৮৫৪০ এই নম্বরে
শিরোনাম:
মুরাদনগরে বসুন্ধরা শুভসংঘের উদ্যোগে সেলাই প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের উদ্বোধন ‘বাবা, আমাদের বাঁচাও বলে চিৎকার করছিল আমার দুই মেয়ে’ বেইলি রোডের অগ্নিকান্ড; খাবার আনতে গিয়ে প্রাণ হারাল মুরাদনগরের পম্পা সারাদেশে সেরা হলো কুমিল্লা জেলা পুলিশ অস্তিত্ব সংকটে তিতাস নদী, রূপ নিয়েছে আবাদি জমিতে কুমিল্লা জেলা পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়ন, কোম্পানিগঞ্জ শাখার কমিটি গঠন বিরল সূর্যগ্রহণ, দিন হবে রাতের মতো অন্ধকার! মুরাদনগরে পরীক্ষায় নকল দিতে গিয়ে ৩জন আটক; ২বছরের সাজা মার্কিন প্রতিনিধি দলের কৃষি কার্যক্রম পরিদর্শন মুরাদনগরে ভাষা শহীদদের স্মরনে প্রভাতফেরি আজ থেকে এক মাস বন্ধ সব কোচিং সেন্টার মুরাদনগরে স্থানীয় সম্পদ আহরণ ও ব্যবস্থাপনা বিষয়ক কোর্সের উদ্বোধন কুমিল্লায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৫ টেলিভিশন জার্নালিস্ট এসোসিয়েশন, কুমিল্লার নতুন কমিটি ঘোষনা মুরাদনগরে অবৈধ সীসা কারখানা সিলগালা, দুই লক্ষ টাকা জরিমানা

আলুর নির্ধারিত দাম মানছেন না কেউই

  • আপডেটের সময় : বৃহস্পতিবার, ২২ অক্টোবর, ২০২০
  • ৬১০ বার পড়া হয়েছে
আলুর নির্ধারিত দাম মানছেন না কেউই
আলুর নির্ধারিত দাম মানছেন না কেউই

ডেস্ক রিপোর্টঃ

কেজিতে ৫ টাকা বাড়িয়ে দাম নির্ধারণ করার পরও, এ দাম মানছেন না খুচরা ও পাইকারি ব্যবসায়ীরা। তাই কোন উপায় না পেয়ে বাড়তি দরেই আলু কিনতে হচ্ছে ক্রেতাদের।

রাজধানীতে পেঁয়াজের জন্য লম্বা লাইন আগে থেকেই ছিলো। এখন অপেক্ষা আলুর জন্যও। প্রতি ট্রাকে মাত্র ৩০০ কেজি। দুই কেজি করে দেয়া যায় মাত্র দেড়শো জনকে। চাহিদার তুলনায় টিসিবির আলুর সরবরাহ সামান্য, তাই কম দামে পাবার আশায় লাইনে দাঁড়ালেও খালি হাতে ফিরতে হচ্ছে অনেককেই।

কথা ছিলো, খুচরা বাজারে আলু মিলবে ৩৫ টাকায়। কিন্তু হাতিরপুল, মহাখালী, বনানী, গুলশানের দুই কাঁচা বাজার- কোথাও ৪৫ টাকার নিচে আলু নেই। দেখতে ভালো হলে ৬০ টাকাও দর উঠছে।

সব পক্ষের সঙ্গে বৈঠক করে প্রতি ধাপে আলুর বিক্রয় মূল্য ৫ টাকা বাড়িয়েছে কৃষি বিপণন অধিদপ্তর। সে হিসেবে হিমাগারে প্রতি কেজি আলু ২৭, আড়তে ৩০ এবং খুচরা বাজারে ৩৫ টাকা। অথচ বাস্তবে দাম মিলছে না। পাইকাররা বলছেন, হিমাগার থেকে ৩০-৩৫ টাকায় আলু আসছে আড়তে। আর খুচরা দোকানিদের কাছে তা বিক্রি হচ্ছে ৪০ টাকায়।

সরকারের পক্ষ থেকে বলা হয়েছিল বাজার তদারকি জোরদার করা হবে। কিন্তু বুধবার রাত এবং বৃহস্পতিবার বেলা বারোটা পর্যন্ত কারওয়ান বাজারে কোনও অধিদপ্তরের প্রতিনিধিরা যাননি। অথচ এই সময়েই সবচেয়ে বেশি আলু কেনা-বেচা হয়।


কুমিল্লা টাইমস’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন

বিজ্ঞাপন

সকল স্বত্বঃ কুমিল্লা টাইমস কতৃক সংরক্ষিত

Site Customized By NewsTech.Com